দিগন্তে ডানা

যেদিন আমি থাকব অনেক দূরে
আমার এ গান গেয়ো তোমাদের সুরে।
ক্ষণিকের যে বাগান সাজিয়েছিলাম যতনে
ফুলে ফুলে হয়তবা ভরে উঠবে মানিক রতনে।



যে স্বপ্ন ছিল আমার চোখে দিবস যামী
দূর থেকে তাই মানস-চোখে দেখব আমি।
বাগান বিলাসের লতা গুলি যেন জড়াবে মায়াবী হয়ে
মাধবীলতা থাকবে তারই পাশে একান্তে।

অপরাজিতার নীল থাকবে বাগান বিলাস জড়িয়ে
মালতী লতার সবুজ পাতা মায়া-
ছড়াবে মাধবীলতার সুবাস মেখে।
চারি পাশে থাকবে টগর, বেলি, করবী, হাসনাহেনা
তারি মাঝে শিশুরা করবে খেলা
যেন মেলবে প্রজাপতির ডানা।

রজনীগন্ধার তোড়া দেবে উপহার কারো জন্ম দিনে
দূরে গেলে আমারই মত তোমাদের কথা পরবে তারই মনে।
জোছনা রাতে শিউলি তলায় বসবে যখন অবসর ক্ষণে
জানিনা আমায় তোমাদের থাকবে কিনা মনে।

সেদিনও  গাইবে গান পাখি বাগানেও ফুল ফুটবে
স্মৃতির বালুকা বেলায় যেদিন আমার এ গান মুছে যাবে।
চিরদিন বসন্ত বীণা বাজবে তোমাদের জীবনে
এই ফুল এই গান সবই রইল তোমাদের জন্যে।।

No comments:

Post a Comment

Follow by Email

Back to Top